Free Seminar

এতো বড় Article দেখে যদি আপনি ভয় পেয়ে যান, পড়ার ধৈর্য্য না থাকে তাহলে অনলাইন ইনকাম আপনার জন্য নয়। মাসে ৩০/৪০ হাজার টাকা ইনকাম করার স্বপ্ন আপনার স্বপ্নই থেকে যাবে, কোনোদিন বাস্তবায়ন হবে না।

তবুও যেহেতু আপনি এই Article পড়ছেন, তার মানে আপনার ধৈর্য্য আছে এবং আপনি অনলাইন থেকে আয় করতে ইচ্ছুক, এখন প্রশ্ন হচ্ছে আপনি কিভাবে শুরু করতে পারেন?

তা জানার আগে আপনাকে জানতে হবে আসলেই কি অনলাইন থেকে আয় করা যায়?

হ্যা শতভাগ নিশ্চিত আয় করা যায়। যেটা আমরা প্রত্যেকটা সেমিনারে প্রমান করি সবকিছু ভিডিওসহ দেখানোর মাধ্যমে। তবুও আপনি নিচের ভিডিওটি দেখে ফেলুন বিস্তারিত বুঝতে। এই ভিডিওগুলি প্রমাণ করে বাংলাদেশে লক্ষাধিক মানুষ বৈধভাবে অনলাইন থেকে ইনকাম করছে। এখানে ক্লিক করে ভিডিও দেখুন

এখন আপনার মনে প্রশ্ন জাগছে , মাসে কত টাকা আয় করা যায়?

আপনি যদি আমাদের গাইড লাইন অনুসরন করে কাজ করেন, তবে মাসে নিশ্চিতভাবে ৩০ হাজার টাকার অধিক আয় করতে পারবেন। কাজের অভিজ্ঞতা বৃদ্ধির সাথে সাথে আয়ের সংখ্যাটাও বৃদ্ধি পাবে।

আপনি বলতে পারেন, আমি কি Google কিংবা YouTube থেকে গাইড লাইন পাবো না? বা শিখতে পারবো না?

বিগত ২ বছরে যারা আমাদের সেমিনারে উপস্থিত হয়েছেন তাদের মন্তব্য পড়লেই আপনার এই প্রশ্নের জবাব আপনি পেয়ে যাবেন। যারা আমাদের সেমিনারে উপস্থিত হয়েছেন তারা প্রত্যেকেই এক বাক্যে স্বীকার করেন যে, Google বা YouTube থেকে ১ বছরেও যে গাইড লাইন পাই নাই আপনাদের একটি সেমিনার থেকে একদিনে তারচেয়ে অনেক বেশি উপকৃত হয়েছি। আমাদের সেমিনার এতো সুন্দর এবং সাবলীলভাবে সাজানো হয়েছে যে, সেমিনার করার পর অনলাইন ইনকাম নিয়ে কারো কোনো প্রশ্ন বাকি থাকে না।

অনলাইন থেকে আয় করতে মানুষ কেন ব্যর্থ হচ্ছে?

অনলাইন থেকে আয় করতে কেন অনেকেই ব্যর্থ হচ্ছে তার প্রধান কয়েকটি কারণ নিম্নে তুলে ধরা হলো:

১) আমাাদের সমাজের মানুষের কথাবার্তাতে বিভ্রান্ত হয়ে মূলত অধিকাংশ মানুষ অনলাইন থেকে আয় করতে ব্যর্থ হচ্ছে। কেউ বলে, অনলাইন থেকে মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করা যায়, আবার কেউ বলে অনলাইন থেকে আয় করার বিষয়টা সম্পূর্ণ মিথ্যা, ভুয়া এবং বানোয়াট, অনলাইন থেকে ইনকাম করা সম্ভব না।

২) অন্যদিকে অনেকেই বলে থাকে, অনলাইন থেকে আয় করা খুবই সহজ অল্প কিছু সময় দিলেই মাসে মাসে লক্ষ টাকা আয় করা যায়। অনেকে এটাও বলে থাকে যে, অনলাইন থেকে আয় করা খুবই জটিল, কঠিন এবং সময়সাপেক্ষ বিষয়। এটা সাধারণ কারোও পক্ষে সম্ভব না। (একটা বিষয় লক্ষণীয় যে, যারাই এসব কথাবার্তা বলে তারা কেউ কোনোদিন অনলাইন থেকে ইনকাম করেনি বা এই প্রফেশনের সাথে যুক্তও নয়)

৩) এই সেক্টরে ব্যর্থ হওয়ার আরো একটি প্রধান সমস্যা হচ্ছে, মানুষজন মনে করে কম্পিউটারে দু-একটি ক্লিক করলেই হাজার হাজার টাকা একাউন্টে চলে আসবে। আর যখন এমনটা হয় না তখন তারা এই পেশাকে মিথ্যা আখ্যায়িত করার অপচেষ্টা করে। যেখানে বাংলাদেশ সরকার চাচ্ছে অনলাইন ইনকাম খাতে আরো ৫ লাখ কর্মী বিনিয়োগ করে বছরে রেমিট্যান্স বিলিয়ন ডলারে উন্নিত করতে। বর্তমানে ৬ লাখ কর্মী এই পেশায় যুক্ত থেকে সফলভাবে বছরে ৫০ কোটি ডলার বৈদেশিক মূদ্রা অর্জন করছে। এখানে ক্লিক করে ভিডিও দেখুন

৪) সফল না হওয়ার পেছনে অন্যতম আরেকটি কারণ হচ্ছে সঠিক গাইডলাইনের অভাব। যখন কেউ এই পেশায় নিজের ক্যারিয়ার দাড় করাতে চায় তখন যোগ্য এবং ভালো প্রতিষ্ঠান খুজে পেতে ব্যর্থ হয়। অধিকাংশ মানুষ জানেনা একটি যোগ্য প্রতিষ্ঠানের কি কি গুণাবলী থাকা প্রয়োজন? আমাদের সেমিনারে আসলে আপনি জানতে পারবেন একটি প্রতিষ্ঠানের কি কি গুণাবলী থাকলে আপনি তাকে ভালো এবং যোগ্য প্রতিষ্ঠান হিসেবে চিহ্নিত করতে পারবেন।

অনলাইন আয় নিয়ে আমাদের সমাজে এমন শত শত ভ্রান্ত ধারণা প্রচলিত রয়েছে। সেজন্যেই আমরা ফ্রি সেমিনারের আয়োজন করেছি যাতে আপনারা সকল ধরণের ভ্রান্ত ধারণা থেকে বাচতে পারেন। পাশাপাশি অনলাইন থেকে আয় করার মাধ্যমে নিজের উজ্জল ক্যারিয়ার গড়তে পারেন, দেশ থেকে বেকারত্ব দূর করে দেশের সুনাম অক্ষুন্ন রাখতে পারেন।

আমাদের সেমিনার হচ্ছে একটি সামাজিক সচেতনতা মূলক কাজ, তাই আমরা সেমিনারের জন্য কোনো টাকা-পয়সা নিচ্ছি না। আপনি সম্পূর্ণ ফ্রিতে পুরো সেমিনারটি করতে পারবেন।

সেমিনার করিয়ে আমাদের কি উপকার হবে?

মূলত এটি একটি সমাজসেবা মূলক কাজ, যাতে আপনারা অনলাইন থেকে আয় করে সফল হতে পারেন। আপনারা যখন আমাদের সেমিনার থেকে উপকৃত হবেন তখন আপনাদের অন্তর থেকে আমাদের জন্য দোয়া আসবে, আর এতেই আমরা খুশি। তাছাড়া এই সেমিনার একটি সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে নেয়া হয়। যা সত্য সেটাই আমরা আমাদের সেমিনারে তুলে ধরার চেষ্টা করি। যেহেতু আমাদের সেমিনারে জয়েন করে হাজার হাজার মানুষ অতীতে উপকৃত হয়েছেন সুতরাং আপনারা কেন বঞ্চিত হবেন?

যারা সেমিনারে অংশগ্রহণ করতে পারবেন?

ছাত্র-ছাত্রী, চাকরিজীবী, ইঞ্জিনিয়ার, ডাক্তার, বেকার ও যে কোনো পেশার লোকজন, যারা নিজের কাজের পাশাপাশি বাড়তি আয় করতে চান অথবা অনলাইন আয় কে তাদের পেশা হিসেবে গ্রহন করে বেকারত্ব দূর করতে চান।

সেমিনারে কিভাবে জয়েন করবেন?

আপনার মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে আপনার নাম, সেমিনারের তারিখ ও সময় লিখে এই নাম্বারে 01757-516 337 মেসেজ সেন্ড করে আপনার সিট নিশ্চিত করতে হবে। (ইংরেজিতে লিখুন) উদাহরণ: (Salman Ahmed, 12/12/2020, 11:00 am)

সেমিনারের সময় ও তারিখ:

আগামি সেমিনারের তারিখ: ০৭/১১/২০২০ শনিবার, সকাল ১১টা।

সেমিনারের স্থান: সোনার বাংলা কমিউনিটি সেন্টার, সুবিদবাজার, সিলেট।

সর্বশেষে বলা যায়, আপনি যদি প্রতিমাসে ৩০ হাজার টাকার অধিক আয় করতে চান কিন্তু কষ্ট করে ৩/৪ ঘন্টার সেমিনার করতে রাজি না থাকেন, তাহলে বলবো অনলাইন ইনকাম আপনার জন্য নয়। কারণ পরিশ্রম করতে চান না আবার টাকা ইনকাম করতে চান, এটা কেবল বোকামি ছাড়া কিছুই নয়। মনে রাখবেন, পরিশ্রম সৌভাগ্যের চাবিকাঠি। যারাই আজকে অনলাইন থেকে সফলভাবে আয় করছে তারা সকলেই পরিশ্রম করে এই জায়গায় পৌছেছে।

ভালো থাকবেন, পরিশ্রমী মানুষদের সাথে নিশ্চয়ই সেমিনারে দেখা হচ্ছে।